তাজা খবর:
বুধবার, ১১ শ্রাবণ১৪২৪, ২৫ জুলাই২০১৭ রাত ২:৪০

৭ দিনেও সংস্কার হলো না কর্নেলহাটের ফুটওভার ব্রীজ,দূর্ভোগে পথচারীরা

৭ দিনেও সংস্কার হলো না কর্নেলহাটের ফুটওভার ব্রীজ,দূর্ভোগে পথচারীরা

মাহমুদুল হাসান রাকিব,চট্টগ্রামঃ চট্টগ্রাম নগরীর ১০ নং ওয়ার্ড আকবরশাহ থানাস্থ কর্নেলহাট ঢাকা-চট্টগ্রাম হাইওয়ে রোড়ে উপর গড়ে উঠা ফুটওভার ব্রীজ ৭ দিনেও সংস্কার হলো না।এতে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে পথচারদের।অতিরিক্ত বৃষ্টিপাতের কারনে একপাশের লোহার পাটাতন খুলে উপরে উঠে যায়,এতে করে পথচারীদের যাতায়াত সম্পূর্ন বন্ধ হয়ে যায়। ১৬৮ ঘন্টা পেরিয়ে গেলে ও ফুটওভার ব্রীজটি সংকার করার জন্য কোন উর্দ্ধতন কর্মকর্তার মাথা ব্যাথা নেই।এই বিষয়ে ৯,১০,১৩ ওয়ার্ড সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর ও চট্টগ্রাম ওয়াসার বোর্ড মেম্বার আবিদা আজাদের সাথে কথা বললে তিনি ৭১ সংবাদকে বলেন বিষয়টি আমার অবগত ছিল না,আমি আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে ফুটওভার ব্রীজ সংস্কার করে জনগনের যাতায়াত ব্যবস্থা স্বাভাবিক করে দিব।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,চট্টগ্রামে প্রচুর বৃষ্টিপাতের কারনে ফুটওভার ব্রীজের পূর্ব-পাশের লোহার সিড়ির পাটাতন খুলে ২ ফুট উপরে উঠে যায়। বর্তমানে ফুটওভার ব্রিজে যাতায়াত ব্যবস্থা বন্ধ রয়েছে।এতে দূর্ভোগে পড়েছে স্কুল কলেজের শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে সাধারনজনগন।ঘটনাস্থল এ বিষয়ে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র ও ১০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলহ্বাজ নিছার উদ্দিন আহমেদ (প্রফেসর মঞ্জু) দেশের বাহিরে অবস্থান করায় তার সাথে যোগাযোগ করার সম্ভব হয়নি এবং ৯,১০,১৩ ওয়ার্ড সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর ও চট্টগ্রাম ওয়াসার বোর্ড মেম্বার আবিদা আজাদ বলেন আমি আগামিকাল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে খুভ শীঘ্রই ফুটওভার ব্রিজে যাতায়াত ব্যবস্থা স্বাভাবিক করার জন্য পদক্ষেপ নিচ্ছি।

গত সোমবার(২৬ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রাম নগরীর ১০ নং ওয়ার্ড আকবরশাহ থানাস্থ কর্নেলহাট ঢাকা-চট্টগ্রাম হাইওয়ে রোড়ে মদপান অবস্থায় ৪ নম্বর সিটি সার্ভিস গাড়ি চালক নিয়ন্ত্রন হারিয়ে ফুটওভার ব্রিজের সিড়ির উপর উঠে যায়।এতে ফুটওভার ব্রিজের দক্ষিনপাশের সিড়ির লোহার পাঠাতন এক অংশ ভেংগে যায়।

উল্লেখ্য বিগত ২০১৪ সালে ৩ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য দিদারুল আলম জনগনের যাতায়াতের সুবিধার কথা বিবেচনা করে ঢাকা-চট্টগাম মহাসড়কের উপর এই ফুটওভার ব্রিজ নির্মান করেন।