তাজা খবর:
বুধবার, ১১ শ্রাবণ১৪২৪, ২৫ জুলাই২০১৭ রাত ২:৪১

“৭১ সংবাদ ডট কম” সাংবাদিক রিয়াজুল করিমকে হুমকি ! থানায় ডায়েরি

“৭১ সংবাদ ডট কম” সাংবাদিক রিয়াজুল করিমকে হুমকি ! থানায় ডায়েরি

৭১ সংবাদ ডট কম-নিজস্ব প্রতিনিধি: এমনই জীবননাশের আশঙ্কায় থাকা বহুল প্রচারিত জাতীয় অনলাইন “৭১ সংবাদ ডটকম” পত্রিকার সাংবাদিক রিয়াজুল করিম  গত ৭ জুলাই-১৭ শুক্রবার রাজবাড়ী সদর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন । যার নাম্বার ৩৮৭ ।

সাংবাদিক নির্যাতন, হয়রানী, হুমকি-ধামকি যেন নিত্যদিনের রুটিনে পরিণত হয়েছে । সুষ্ঠু বিচার না হওয়ায় পার পেয়ে যাচ্ছেন অপরাধীরা । চলমান হুমকি-ধমকির মধ্যেও আটকে নেই সাংবাদিকরা । এমনকি জীবননাশের হুমকি মাথায় নিয়েই পরিবার পরিজন নিয়ে দিনানিপাত করতে হয় তাদের ।

সাংবাদিক রিয়াজুল করিম সাধারণ ডায়েরিতে উল্লেখ করেছেন, সরকারে সংশ্লিষ্ট মহল ও ভুক্তিভোগী জনসাধারনের সহায়ক হিসেবে আমি বাস্তব সনম্মত/বস্তুনিষ্ঠ একাধিক অনুসন্ধানী প্রতিবেদন তৈরি করেছি ।

ভূক্তভোগী জনসাধারনের উপকারার্থে গত ৫/৭/২০১৭ ইং তারিখে, “নৌকার দোহাই দিয়ে পৌরসভার মেয়র-বৃষ্টি হলেই রাজবাড়ী চাউল-মুরগি বাজারে জমে থাকে পানি” শিরোনামে বহুল প্রচারিত জাতীয় অনলাইন “৭১ সংবাদ ডটকম” পত্রিকায় প্রতিবেদক রিয়াজুল করিম’র নামে একটি বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশ হয় । বিষয়টি জেলার সচেতন জনসাধারন, রাজনৈতিক মহল, ও প্রশাসনসহ সকলের দৃষ্টিগোচর হয় । সংবাদ প্রকাশের পর রাজবাড়ী পৌরসভার মেয়র মহাম্মদ আলী চৌধুরীর ভাগ্নে ও রাজবাড়ী জেলা পরিষদের সদস্য  (মেম্বর) মোঃ রাশেদুল হক অমি রাগাম্বিত ও উত্তেজিত হয়ে  ৫/৭/২০১৭ ইং তারিখ রাত ১০:২৩ মিনিট সময়ে আমাকে মুঠোফনে ০১৭১৫-৬১০৮৫৫ নাম্বার থেকে বলে যে, এই সালা তোর কত বড় সাহস তুই মেয়রের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করস, সাংবাদিকতা করে এই শহরে থাকবি ? তুই কোন জায়গায় আছিস, সাংবাদিকতা পাছার মধ্যে দিয়ে দেব, মেয়রের কাছে চাঁদা চাও না ? টাকা না দেওয়ায় উল্টা-পাল্টা লেখস, তোর এত বড় সাহস, বাড়ী থেকে ধরে নিয়ে আসব, তোর শহরে পাইলে হয়, চিরতরে সাংবাদিকতা শিক্ষা দিয়ে দেব বলে অকথ্য ভাষায় মা তুলে গালিগালাজ করে ও হত্যার হুমকি প্রদান করে । বিষয়টি তাৎক্ষনিক ভাবে মুঠোফনে আমি পুলিশ প্রশাসন, ফরিদপুর র‌্যাব ক্যম্প, ৭১ সংবাদ ডটকমের সম্পাদক, স্থানীয় সাংবাদিকবৃন্দ, রাজনৈতিক মহল, আরও অনেককে অবগত করি ।

রাজবাড়ী পৌরসভার মেয়র মহাম্মদ আলী চৌধুরীর ভাগ্নে মোঃ রাশেদুল হক ওমি  গং ভয়ংকর দূর্ধর্ষ ।

এতে আমি আমার সন্তান ও পরিবার-পরিজন নিয়ে আতংকের মধ্যে দিনানিপাত করছি এবং আমার পেশাগত দ্বায়িত্ব পালন করতে পারছি না ।

ডায়রিতে আরো উল্লেখ করেন, মোঃ রাশেদুল হক ওমি ও তার সহযোগীরা আমার নামে মিথ্যা মামলা দেয়া কিংবা যে কোন মূহুর্তে যে কোন স্থানে আমাকে লাঞ্চিত ও হত্যাসহ আমার পরিবারের সদস্যদের যে কোন বড় ধরনের ক্ষতি সাধন করতে পারে ।